ট্রাম্পের সিদ্ধান্তে উত্তাল পাকিস্তান, জরুরি তলব মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে


বুধবার,০৩/০১/২০১৮

নিজস্ব সংবাদদাতা:  কথাই বলে বছরের প্রথম দিন ভালো হলে পরবর্তি দিনগুলো ভালো যায় । ভালো মন্দ তা সময়ই বলবে ।কিন্তু এই মুহূতে পাকিস্তানের সময়টা ভালো যাচ্ছে না । কারণ তা আশা করি সবারই জানা । তবুও বলি ট্রাম্পের টুইট ? বছরের প্রথম টুইট আর তাতেই বিশ্ব রাজনীতিতে শোরগোল পড়ে যায়  ।

পাকিস্তান আমেরিকা কে বোকার মতো ঠকাচ্ছে । গত ১৫ বছরে ৩৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি অর্থসাহাযো দিয়েছে আমেরিকা । আর ওরা আমাদের নেতাদের বুদ্ধু মনে করে মিধ্যে প্রতারণা ছাড়া কিছুই দেইনি । আফগানিস্তানে যে জঙ্গিদের আমরা খুঁজছি পাকিস্তান তাদের নিরাপদ আশ্রয় দেয় । এতএব আর নয়, এভাবে কঠোরতম ভাষায় ক্ষোভ উগরে দেন তিনি ।

গতকাল টুইট আজ কাজের কাজ মার্কিন প্রশাসন জানিয়ে দেন পাকিস্তানকে আর সামরিক অর্থ সাহায্য
আপাতত দেওয়া হবে না । তার কিছু ক্ষণ পরই পাল্টা ফুসে উঠে পাকিস্তান । আফগানিস্তানে ব্যর্থতা ঢাকতে অন্যকে দোশারোফ বন্দ করুন মার্কিন সরকার, মন্তব্য ইসলামাবাদের ।

২৫৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থ সাহায্য বন্ধের পর পাকিস্তানে নিযুক্ত মার্কিন বিদেশমন্ত্রকের সামনে বিক্ষোভ দেখান কাউন্সিলররা । পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রী খোওয়াজ আসিফ বলেন ,তারা আসল সত্য দুনিয়ার সামনে খুব শীঘ্রই প্রকাশ করবেন । পাক সংবাদ সূত্রে জানানো হয় সেদেশে নিযুক্ত  মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে জরুরি তলব করেছে । অবশ্য প্রতিবারের মত এবার চীনকে পশে পেয়েছে পাকিস্তান  । সামরিক অর্থ সাহায্য বন্ধ করাকে করা সমালোচনা করে বেজিং  ।

আফগানিস্তানে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত বিবেক কারযু বলেন শুধুমাত্র আর্থিক সাহায্য বন্দ করে পাকিস্তানকে শিক্ষা দেওয়া যাবে না  । পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে আরো কড়া পদক্ষেপ করতে হবে ।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়